আগামী পৌর নির্বাচনকে সামনে রেখে ‘5 Star মেগা প্রকল্প’ ঘোষণা করেছেন লালপুর উপজেলার অন্তর্গত গোপালপুর পৌরসভার ৭ নং বাহাদীপুর ওয়ার্ডের বাসিন্দা মাসুদুর রহমান মাসুদ।গত কয়েকদিন যাবৎ তিনি ও তার সমর্থকেরা গোপালপুরের বিভিন্ন জায়গায় এই লিফলেট বিতরণ করছেন।এখানে উল্লেখ্য এই যে, গোপালপুর পৌর নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ইতিপূর্বে কোন প্রার্থী এরকম রূপরেখা প্রণয়ন করেননি। প্রথমবারের মত দীর্ঘমেয়াদী নগর উন্নয়ন পরিকল্পনার অংশ হিসেবে এই রূপরেখা স্বাভাবিকভাবেই সাধারণ জণগনের আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে উঠে এসেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মাসুদুর রহমান মাসুদ ঢাকা কলেজের সাবেক ছাত্রনেতা। ছাত্রাবস্থায় তিনি ঢাকা কলেজের ছাত্র রাজনীতির সাথে সক্রিয়ভাবে জড়িত ছিলেন। এলাকাতে তিনি ও তার পরিবার আওয়ামী রাজনীতির সাথে ওতোপ্রোতোভাবে জড়িত। তার ছোট ভাই মাহাদি হাসান মাসুম ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি। এ ব্যাপারে মাসুদুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ‘পৌরসভার অভ্যন্তরে একটি হাসপাতাল, অনাথ আশ্রম, সময়োপযোগী কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টার, কমিউনিটি সেন্টার এবং বাচ্চাদের বিনোদনের জন্য একটা শিশু পার্ক থাকা উচিত। তাছাড়া আমাদের আশেপাশের অঞ্চলগুলো যেভাবে ধীরে ধীরে উন্নয়নের দিকে এগোচ্ছে, সেই তুলনায় পৌরসভার উন্নয়নের হার খুবই নগন্য। সেই জায়গা থেকে পৌর নির্বাচনের আগে প্রত্যেক প্রার্থীই যদি তাদের আলাদা আলাদা রূপরেখা সাধারণ মানুষের মধ্যে প্রকাশ করে,তবে নগর উন্নয়নে আম জনতা নিজেদের চাহিদাকে প্রাধান্য দিয়ে একজনকে নির্বাচিত করতে পারে এবং প্রত্যেক প্রার্থীদেরই জনগণের কাছে একটা দায়বদ্ধতার জায়গা থাকে।’

এ ব্যাপারে সাধারণ মানুষের মধ্যে বিভিন্নরকম প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। অনেকের মধ্যে প্রশ্ন জেগেছে, ৩য় শ্রেণির এই পৌরসভায় এরকম পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য বাজেট আসবে কোত্থেকে। অনেকেই আবার রাস্তা-ঘাটের উন্নয়ন, জল নিষ্কাশনের ব্যবস্থা, বিদ্যুৎ সমস্যার সমাধান ও এলাকা পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার উপর জোর দেওয়ার কথা বলছেন। তবে পৌর নির্বাচনের আগে এরকম রূপরেখা প্রকাশ করাকে সাধারণ মানুষ ইতিবাচক ভাবেই গ্রহণ করেছেন বলে মনে হচ্ছে। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here